নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে তৃতীয় একটি পক্ষ : সেলিম ওসমান

0
24
নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে তৃতীয় একটি পক্ষ : সেলিম ওসমান

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাকিস্তানের মদদের তৃতীয় একটি পক্ষ আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান। সেই সাথে তিনি এও বলেছেন যত ষড়যন্ত্রই হোকনা কেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন পরিবেশে অবশ্যই অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ একটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগামী নির্বাচনে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বানাতে সকলের প্রতি আহবান রাখেন। সেই সাথে তিনি বন্দর উপজেলার লাঙ্গলবন্দের কারনেই নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে প্রধানমন্ত্রী মহাজোট থেকে লাঙ্গল মার্কার প্রার্থীর দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন এই লাঙ্গল লাঙ্গলবন্দের লাঙ্গল।

৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় বন্দর উপজেলার লাঙ্গলবন্দ এলাকায় মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে মুছাপুর ইউনিয়নবাসী উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়ার অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি সেলিম ওসমান এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আমি বিগত দিনের মত ভবিষ্যতেও সকলকে নিয়ে সম্মিলিত ভাবে ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য কাজ করে যেতে চাই। ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য কাজ করে যাওয়ার দিক নির্দেশনাটা আমরা পেয়েছি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে। বিগত দশ বছরে দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ড লক্ষ্য করতে আপনার বুঝতে পারবেন। আগামী নির্বাচনে যদি আবারো শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী বানানো যায় তাহলে আগামী ৫ বছরে বাংলাদেশ ২৫ বছর এগিয়ে যাবে।

নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে তৃতীয় একটি পক্ষ : সেলিম ওসমান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেওয়া একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, একমাত্র নারীই পারেন প্রধানমন্ত্রী স্বপ্ন একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের মূল বাস্তবায়নকারী হতে। ভবিষ্যতে নারীদের হাত ধরেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। তাই সবার আগে নারীদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। একজন নারীর পক্ষেই সম্ভব দেশের ভবিষ্যত প্রজন্মকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করা এবং প্রতিটি পরিবারকে অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী করতে। তাই আমি সকল মা বোনদের প্রতি আহবান রাখবো আপনারা আর পিছিয়ে থাকবেন না। আপনাদেরকে অবশ্যই এগিয়ে আসতে হবে।

এদিকে মতবিনিময় সভায় বর্তমান শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত পরিকল্পনা ও কর্মপন্থা নিয়ে এমপি সেলিম ওসমানের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ কলেজের একাদশ শ্রেণীর প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সোনিয়া। তিনি বলেন, এমপি সেলিম ওসমান বিগত দিনে আমাদের শিক্ষার মানোন্নয়নে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন করেছেন। নিজ অর্থায়নে ৭টি স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণ করেছেন। আমাদের ক্লাসে মাল্টিমিডিয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। ৩টি স্কুলের সকল শিক্ষার্থীকে বিনা খরচে লেখাপড়া করার সুযোগ করে দিয়েছেন। যা আমাদের শিক্ষায় মনোযোগী করেছেন। আগামী সংসদ নির্বাচনে উনার মত একজন ব্যক্তিকে অবশ্যই আবারো নির্বাচিত করা উচিত। আর উনি নির্বাচিত হলে উনার কাছে আমার প্রত্যাশা থাকবে, আমি লেখাপড়া শেষ করে বেকার থাকতে চাই না। মাদকের ছোবলে গ্রাস হতে চাই না। আমার চাকরির সন্ধ্যানে সময় নষ্ট করে বেকার বসে থাকতে চাই। আমরা চাই উনি আমাদের প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করে দিবেন। আমি আমাদের প্রশিক্ষনের মাধ্যমে অনলাইনে আউটসোসিংয়ের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে। পরিশেষে বলতে চাই উনি প্রায় সকল খাতে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তাই উনাকে অবশ্যই পুনরায় নির্বাচিত করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন বলেন, এমপি সেলিম ওসমানের মাধ্যমে আমার মুছাপুর ইউনিয়নে যে সকল উন্নয়ন হয়েছে। বিগত সময়ে এতো উন্নয়ন মুছাপুরবাসী দেখি নাই। লাঙ্গলবন্দের দিকে লক্ষ্যে করলেই আপনারা উনার কর্মকান্ড সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা পাবেন। আগামী সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থী এমপি সেলিম ওসমান আমরা লাঙ্গল প্রতীকে ভোট দিয়ে আবারো বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবো।

মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন এর সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম.এ রশিদ, মহানগর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি রবিউল হোসেন, সিটি কর্পোরেশনের ২৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাবুল, মহানগর আওয়ামী মহিলালীগের সভানেত্রী ইসরাত জাহান খান স্মৃতি, জেলা যুবসংহতির যুগ্ম আহবায়ক কামাল হোসেন, বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন, ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ, কলাগাছিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সাধারণ সম্পাদক শিপন সরকার সহ মুছাপুর ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ডের সদস্যবৃন্দ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা সহ প্রায় সাড়ে ৩ হাজার স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন।