তেল ব্যবসায়ী ইকবালকে আদালতে প্রেরণ : স্বীকারোক্তি আদায়

0
35
গ্রেফতাকৃত তেল ব্যবসায়ী ইকবালকে আদালতে প্রেরণ : স্বীকারোক্তি আদায়

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ১২/০৩/২০১৯ খ্রিঃ ফতুল্লা থানার মামলা নং- ৩৯(০৩)১৯, ধারা-১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫- খ(১) মামলার এজাহার নামীয় আসামী ইকবাল চৌধুরীকে ডিবি পুলিশের একটি টিম ফতুল্লা লঞ্চঘাট এলাকা হইতে গ্রেফতার করে। উক্ত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে তেল চুরি করিয়া সিন্ডিকেটের মাধ্যমে শুল্ক ফাঁকি দিয়া বিক্রি করার কথা স্বীকার করে। এবং সে তেল চোরাকারবারী সিন্ডিকেট দলের অন্যতম সদস্য বলিয়া স্বীকার করে। জিজ্ঞাসাবাদে উক্ত গ্রেফতারকৃত আসামী স্বীকার করে যে কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় ও স্বার্থান্বেষী মহলের সহযোগীতায় সে ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা পিটিশন দায়ের করে।

পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পেছনে কারা কারা প্ররোচনা দিয়েছে এবং তাদের নাম ঠিকানা উক্ত জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়। তদন্তের স্বার্থে তাদের নাম প্রকাশ করা আপাতত সম্ভব হচ্ছে না।

উক্ত তেল চোর আসামী ইকবাল চৌধুরী তেল চুরির ঘটনা স্বীকার করিয়া এবং অন্যের প্ররোচনায় ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করিয়াছে মর্মে স্বীকার করিয়া বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাওসার আলম এর আদালতে ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী প্রদান করে। আদালত জবানবন্দি শেষে ইকবাল চৌধুরীকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত) বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ পেশাদারীত্বের সহিত কাজ করবে। নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের কোনো সদস্য অনৈতিক ও অপেশাদারীত্বের সহিত কাজ করলে তদন্ত সাপেক্ষে উক্ত পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি আরো বলেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে তথা ভূমিদস্যু, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, জঙ্গীবাদ, জুট সন্ত্রাসী সহ মাদক ও তেল চোরাকারবারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত আছে। যাহা আরো বেগবান করা হয়েছে।

এ সময় তিনি নারায়ণগঞ্জের সম্মানিত নাগরিকবৃন্দদেরকে অন্যায়-অপরাধ সম্পর্কিত তথ্য দিয়ে পুলিশকে সহযোগীতা করার আহ্বান করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here