সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপে ফেম অ্যাপারেলস্ ও অন্তিম নীট গার্মেন্টে অসন্তোষের অবসান

0
66
সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপে ফেম অ্যাপারেলস্ ও অন্তিম নীট গার্মেন্টে অসন্তোষের অবসান

স্টাফ রিপোর্টার : নীট গার্মেন্ট ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বিকেএমইএ এর সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপে বিসিক শিল্পনগরীতে ফেম অ্যাপারেলস্ লিমিটেড এবং রূপগঞ্জে অন্তিম নীট গার্মেন্টের শ্রমিক অসন্তোষের সুষ্ঠু সমাধান করা হয়েছে।

বিকেএমইএ এর সভাপতির নিদের্শনায় ফতুল্লার বিসিক শিল্পনগরীতে অবস্থিত ফেম অ্যাপারেলস্ লিমিটেডে শ্রমিক মৃত্যুর ঘটনায় সৃষ্ট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে কারখানাটি দুই দিনের ছুটি ঘোষণা করে বিকেএমইএ, বিসিক শিল্প-মালিক সমবায় সমিতি লিমিটে, শিল্প পুলিশ-৪, নারায়নগঞ্জ,কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর, ফতুল্লা থানা, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স ও শ্রমিক প্রতিনিধি সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এক্ষেত্রে ঘোষিত দুই দিনের ছুটিতে অবশ্যই শ্রমিকদের পাওনা অবশ্যই মালিকপক্ষকে পরিশোধ করার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

উক্ত কমিটির নেতৃবৃন্দ ২৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উক্ত কারখানা পরিদর্শন করে এবং ঘটনার সময় উপস্থিত শ্রমিক ,সুপারভাইজার ও কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেন এবং সিসি টিভি ফুটেজ দেথে প্রতীয়মান হয় যে সকাল ৮টা ১৮ মিনিটে দুর্ঘটনা ঘটে, ৮টা ২৪ মিনিটে বিদ্যুতায়িত শ্রমিককে ফ্লোর থেকে নিচে নামানো হয় এবং ৮টা ২৮ মিনিটে গাড়ী করে হসপিটালের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। হসপিটাল কর্তৃপক্ষ শ্রমিককে পরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন ।

তদন্তে বিষয়টি উপস্থিত সকলের সম্মতিক্রমে নিছক দুর্ঘটনা হিসেবে প্রতীয়মান হয়। যেহেতু বিষয়টি দুর্ঘটনা তাই উক্ত শমিকের পারিবারিক দিক বিবেচনা করে শ্রম মন্ত্রণালয়ের কেন্দ্রীয় তহবিল থেকে কাজের সময় দুর্ঘটনা জনিত মৃত্যুর জন্য ৩ লক্ষ টাকা এবং শ্রমিকের কাজের বয়স ছয় মাস হওয়ায় আইন অনুযায়ী অন্য কোন সুবিধা না পেলেও কারখানা কর্তৃপক্ষের থেকে শ্রমিকের পরিবারের বিষয়টি মাথায় রেখে আরোও ২ লক্ষ টাকা পরিশোধের জন্য বিকেএমইএ’র সভাপতি সংসদ সদস্য এ.কে.এম সেলিম ওসমান প্রদানের জন্য কারখানা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করেন। এক্ষেত্রে মৃত শ্রমিকের পরিবারের হাতে মোট ৫ লাখ টাকা এবং পরিবারের অন্য সদস্য যদি চাকরি করতে ইচ্ছুক থাকে তবে সেই সদস্যকে চাকরির ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে বলেও সিদ্ধান্ত দিয়েছেন বিকেএমইএ সভাপতি।

অন্যদিকে রূপগঞ্জ অন্তিম নীট কারখানায় শ্রমিকদের গত ২৩ অক্টোবরের মধ্যে বেতন পরিশোধের কথা থাকলেও কর্তৃপক্ষ বেতন পরিশোধ না করায় বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। উক্ত ঘটনায়ও বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান প্রতিষ্ঠানটির মালিকের সাথে যোগাযোগ করে ২৫ অক্টোবরের মধ্যে বেতন পরিশোধের ব্যবস্থা করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। উল্লেখ্য যে, ইতোমধ্যে অন্তিম নীট কারখানায় শ্রমিকদের সমস্ত পাওনাদি বুঝিয়ে দেয়া হয়।

উক্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিকেএমইএ এর সভাপতি সেলিম ওসমান বিকেএমইএ এর সদস্যভুক্ত শিল্পপ্রতিষ্ঠানের মালিকদের প্রতি আহবান রেখে বলেন, যেহেতু জাতীয় নির্বাচন আসন্ন, তাই এই নির্বাচনের প্রাক্কালে কেউ যাতে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে না পারে, সেজন্য বিকেএমইএ সদস্যভূক্ত সকল প্রতিষ্ঠানকে বিকেএমইএ এর সাথে কোন আলোচনা না করে অনাহতুক ছাঁটাই না করা বা কারখানা স্থানান্তর না করা, শ্রমিকদের মাসিক বেতন প্রতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে পরিশোধ করার জন্য এবং ছোট-খাট বিষয়ে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি না করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। যদি কোন ব্যক্তি, কোন প্রতিষ্ঠান বা কোন শিল্প উদ্যোক্তা বিকেএমইএ কে না জানিয়ে এই ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি করে এবং এর প্রেক্ষাপটে শ্রমিক অসন্তোষ এর ঘটনা ঘটে, তবে সেই প্রতিষ্ঠান এবং মালিকের বিরুদ্ধে বিকেএমইএ’র পক্ষ থেকে কঠোর প্রশাসনিক ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। একই সাথে সরকারও যদি উক্ত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করে, সেখানেও বিকেএমইএ এর কিছুই করার থাকবে না। সুতরাং জাতীয় স্বার্থে স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের পূর্বে কোন ধরনের শ্রমিক ছাঁটাই/বরখাস্ত না করা, বেতন পরিশোধে অবহেলা এবং শ্রমিকের পাওনাদি পরিশোধে কোন ধরনের বিলম্ব বা অবহেলা না করার জন্য বিকেএমইএ পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। একই সাথে যে কোন ধরনের ছোটখাটো শ্রমিক অসন্তোষ ঘটনা দেরী না করে বিকেএমইএ ও শিল্পপুলিশকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে। বিসিকে সৃষ্ট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার জন্য জেলা পুলিশ সুপার, শিল্প পুলিশ ও ফতুল্লা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সকল সদস্যকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।