হালিম আজাদ কান্ডে উত্তপ্ত রাজনৈতিক অঙ্গন

0
38
হালিম আজাদ কান্ডে উত্তপ্ত রাজনৈতিক অঙ্গন

স্টাফ রিপোর্টার : হালিম আজাদ কান্ডে আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে নারায়ণগঞ্জে সরকারী দলের রাজনৈতিক অঙ্গন। প্রধানমন্ত্রী, জয়-বাংলা স্লোগান ও সংসদকে কটুক্তি করা একটি আপত্তিকর ব্যাপার। যারা এমনটি করেছেন তাদের প্রতি আমি তীব্র নিন্দা জানাই। শিঘ্রই আমরা তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবো।’

সোমবার (১০ জুন) বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি হালিম আজাদ সর্ম্পকে গণমাধ্যমের কাছে এভাবেই কথা গুলো বলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা।

প্রসঙ্গত, গত ৮ জুন সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের এক কর্মসূচীতে হালিম আজাদ বলেন, ‘একটা দেশের প্রধানমন্ত্রী যখন সংসদে খুনি নিয়ে আলোচনা করে তখন সেই সংসদের কোন মর্যাদা থাকেনা। সেই সংসদ হায় হায় করতে থাকে এবং শোক বেদনায় মর্মাহত হয়ে যায়। শেখ হাসিনা ত্বকীর খুনিকে নিয়ে সংসদে বৈঠক করে। এই শেখ হাসিনা যতদিন ত্বকীর হত্যাকারী নিয়ে বৈঠক করবে ততোদিন সংসদের মর্যাদা ফিরে আসবেনা।’

মীর সোহেল বলেন, ‘আমি হালিম আজাদের বক্তব্যের প্রতি তীব্র নিন্দা জানাই। প্রধানমন্ত্রী, জয়-বাংলা স্লোগান ও সংসদকে নিয়ে কটুক্তি করা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল। আমি বিশ্বাস করি যারা প্রধানমন্ত্রী, জয়-বাংলা ও সংসদকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন, তাদের প্রতি নারায়ণগঞ্জের সুদক্ষ প্রশাসন ব্যবস্থা নিয়ে অবিলম্বে গ্রেফতার করবে।’

সোমবার (১০ জুন) বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি হালিম আজাদ সর্ম্পকে গণমাধ্যমের কাছে এভাবেই কথা গুলো বলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল।

তিনি আরো বলেন, আমার প্রিয় নেতা ও নারায়ণগঞ্জের আওয়ামীলীগের কান্ডারী, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দেওয়ায় আমি ক্ষুব্ধ। অবিলম্বে সিনিয়র নেতাদের সাথে বসে এব্যাপারে কর্মসূচি নিচ্ছি।

প্রসঙ্গত, গত ৮ জুন সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের এক কর্মসূচীতে হালিম আজাদ বলেন, ‘একটা দেশের প্রধানমন্ত্রী যখন সংসদে খুনি নিয়ে আলোচনা করে তখন সেই সংসদের কোন মর্যাদা থাকেনা। সেই সংসদ হায় হায় করতে থাকে এবং শোক বেদনায় মর্মাহত হয়ে যায়। শেখ হাসিনা ত্বকীর খুনিকে নিয়ে সংসদে বৈঠক করে। এই শেখ হাসিনা যতদিন ত্বকীর হত্যাকারী নিয়ে বৈঠক করবে ততোদিন সংসদের মর্যাদা ফিরে আসবেনা।’

শামীম পুত্র অয়ন ওসমান তার ফেসবুকে লিখেন, এইদিকে, প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কোন অসংগতিপূর্ণ কথা না বলার অনুরোধ করেছেন সাংসদ পুত্র অয়ন ওসমান। সোমবার (১০ জুন) এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি এ কথা জানান।

অয়ন ওসমান তার ফেসবুক স্ট্যাটাস এ লিখেন “যদি আমি বাংলা সিনেমার ভিলেন হতাম তাহলে, ডাইলগ দিতাম যে, এই হালিম আমি ফু দিলে তুই আজাদ হইয়া যাবি, যদি একজন রাজনীতিবীদ হতাম তাহলে বলতাম যে, এই মিথ্যাচার এবং অপপ্রচারের রাজনৈতিক কৌশল ছেড়ে সাধারন জনগনের পাশে দারান (দাঁড়ান) এবং নারায়ণগঞ্জ এর উন্নয়ন মূলক কার্যকলাপ বজায় রাখার সর্বোচ্চ সহযোগীতা করেন।

যেহেতু আমি একটাও না আমাকে ফ্রি পাবলিসিটি দেওয়ার জন্য আমি আপনাদের আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাতে চাই। এটা জানা স্বত্বেও যে আমার সিভিল রাইটস্ লঙ্ঘন হয়েছে, যেহেতু আমি একজন আইন এর ছাত্র এবং আমার আইন শৃঙ্খলার উপর বিশ্বাস রয়েছে। আপাতত একটাই অনুরোধ থাকবে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আর উল্টা পাল্টা কোন স্ট্যাটমেন্ট দিয়েন না। উনার প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা আছে বলেই নারায়ণগঞ্জ এখনো কোন একশনে (অ্যাকশনে) যায় নাই এবং আসা করি যাবেও না।”