সিদ্ধিরগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের

0
68
সিদ্ধিরগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জে আওয়ামীলীগ ও যুবলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (৫ ডিসেম্বর) সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হাজী ইয়াসিন মিয়ার ছোটভাই সিদ্দিকুর রহমান আবুল বাদী হয়ে নাজিম উদ্দিন নাজু, তার মেয়ের জামাই মতিউর রহমান মতু, রুবেল, চ্যানেল রাজু ও সাইদুলসহ মোট ৫ জনকে এজাহার নামীয় আসামী এবং ২০/৩০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে মামলাটি দায়ের করেছে। এদের মধ্যে সাইদুল নামে একজন গ্রেফতার রয়েছে। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় হাজী ইয়াসিন মিয়ার বাড়ীর সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে থানা পুলিশ নিশ্চিত করেছে।
তবে থানা পুলিশ এক পক্ষের মামলা নিলেও অপর পক্ষের মামলা নিচ্ছেনা বলে প্রতিপক্ষ গ্রুপটি দাবী করেছে।
জানাগেছে, গত মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রাত ৭ টায় মিজমিজি সাহেবপাড়া এলাকায় একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে যুবলীগ কর্মী রাসেল ওরফে ইয়াবা রাসেল সদ্য আওয়ামীলীগে যোগদানকারী নাজিমউদ্দিন নাজুকে প্রকাশ্যে দলবল নিয়ে লাঞ্ছিত করে। তখন ঘটনাটি নাজু অন্যকাউকে নাজানালেও পরস্পরের মুখে ছড়িয়ে পড়লে কান্দাপাড়া এলাকার মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। একে একে এক থেকে দেড় হাজার মানুষ জড়ো হয়ে মিজমিজি পশ্চিমপাড়া এলাকাস্থ সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়ার কার্যালয়ের সামনে আসলে রাসেল গ্রুপের মূখোমূখী হলে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে উভয় গ্রুপের অন্তত ২০ জন আহত হয়। এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা ওই কার্যালয়ের সামনে থাকা ৩টি মটরসাইকেলের মধ্যে (যার নং- ঢাকা মেট্টো-ল-২৬-০২৯৯, ঢাকা মেট্টো-ল ৩৪-৬১৮৭, ঢাকা মেট্টো-ল ২৩-২৮০৬) ১টি জ্বালিয়ে দেয় এবং ২টি ভাংচুর করে। একই সময় নাজু গ্রুপের লোকজন চৌধুরীপাড়াস্থ রাসেলের কার্যালয় ভাংচুর করে। খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভায়। পরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি শাহীন শাহ পারভেজ, পরিদর্শক আজিজুল হক, উপ-পরিদর্শক (এসআই) জয়নাল আবেদীন ও শামীমসহ একাধিক পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি মোকাবেলা করে।
উল্লেখ্য, রাসেল নিজেকে সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ২নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পরিচয় দিয়ে আসছিল। এ ওয়ার্ডে কোন কমিটি এখনও হয়নি। ইতোপূর্বে সে বেশ কয়েকবার পুলিশ ও ডিবি পুলিশের হাতে অস্ত্র এবং মাদকসহ গ্রেফতার হয় বলে জানায় দলীয় কর্মীরা। নাজিম উদ্দিন নাজু ইতোপূর্বে নুর হোসেনের সহযোগী ছিল। সে এক বছর পূর্বে সিদ্ধিরগঞ্জপুলস্থ আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ের একটি অনুষ্ঠানে ও ২৪ নভেম্বর সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়ার কার্যালয়ের সামনে আরেকটি অনুষ্ঠানে আওয়ামীলীগে যোগদান করেন।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আজিজুল হক মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে পরিস্থিতি মোকাবেলায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে জানিয়েছে।