সোনারগাঁওয়ে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় পরিবার কল্যাণ সহকারীকে পিটিয়ে জখম

0
19
সোনারগাঁওয়ে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় পরিবার কল্যাণ সহকারীকে পিটিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় পরিবার কল্যাণ সহকারীকে পিটিয়ে জখম করেছে এক বখাটে। গতকাল বুধবার দুপুরে জামপুর ইউনিয়নের মুন্দিরপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই পরিবারকল্যাণ সহকারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এঘটনায় বিকেলে পরিবার কল্যাণ সহকারী আশা হক বাদি হয়ে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।
সোনারগাঁও থানায় দায়ের করা অভিযোগে আহত আশা হক উল্লেখ্য করেন, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের ১-ক ইউনিটে তিনি পরিবার কল্যাণ সহকারী (এফডব্লিউএ) হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। মাঝের চর গ্রামের মারুফ মিয়ার ছেলে শাহিন এক বছর ধরে কমিউনিটি ক্লিনিকের বাইরে দাড়িয়ে থেকে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতো। এতে রাজি না হওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়।
বুধবার দুপুরে শাহিন কমিউনিটি ক্লিনিকের বাইরে দাড়িয়ে পুনরায় বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন অঙ্গিভঙ্গি করে কু প্রস্তাব দেয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। জামপুর ইউনিয়নের মুন্দিরপুর কমিউনিটি ক্লিনিকে কাজ শেষে তিনি ফিল্ড ভিজিটে যাওয়ার পথে শাহিন আশা হককে একা পেয়ে পিটিয়ে আহত করে। আহত আশা হক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। এঘটনায় আহত পরিবার কল্যাণ সহকারী আশা হক বাদি হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন।
সোনারগাঁও থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, পরিবার কল্যাণ সহকারীর উপর হামলার ঘটনায় অভিযোগ গ্রহন করা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।