ত্রিপুরা ও নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের বৈঠকে ত্রিপুরায় বিনিয়োগের আহবান

0
97
ত্রিপুরা ও নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের বৈঠকে ত্রিপুরায় বিনিয়োগের আহবান

স্টাফ রিপোর্টার : ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের শিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে অল ত্রিপুরা মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে শিল্প ও বাণিজ্যনগরী নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ আগষ্ট শুক্রবার রাতে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির চেম্বার ভবনের সম্মেলনকক্ষে এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ত্রিপুরার ব্যবসায়ীরা নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ী ও শিল্প উদ্যোক্তাদের ত্রিপুরায় বিনিয়োগের আহবান জানান এবং তাদের পারস্পরিক ব্যবসায়িক সম্পর্ক বাড়ানোর তাগিদ দেন। বৈঠকে নেতৃবৃন্দ দু’দেশের মধ্যে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের নানা দিক তুলে ধরেন।

ত্রিপুরা ও নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের বৈঠকে ত্রিপুরায় বিনিয়োগের আহবান

সভায় সভাপতিত্ব করেন নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল। ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন ভারতের ত্রিপুরার ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট (শিল্প উন্নয়ন) করপোরেশনের চেয়ারম্যান শ্রী টিংকু রায়। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অল ত্রিপুরা মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি তুষার কান্তি চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক সুজিত রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রাণ গোপাল সাহা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অরিজিৎ দে, পার্থ বিশ্বাস। নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জের সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির পরিচালক অ্যাডভোকেট হোসনে আরা বেগম বাবলী, বিকেএমইএ’র প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি ও বর্তমান পরিচালক মঞ্জুরুল হক, রাশেদ সারোয়ার, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি এম সোলায়মান, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সহসভাপতি মোরসেদ সারোয়ার সোহেল, বিকেএমইএ ও নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির পরিচালক শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, খন্দকার সাইফুল ইসলাম, আতাউর রহমান, আশিকুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির পরিচালক ও বাংলাদেশ হোসিয়ারী এসোসিয়েশনের সভাপতি কাউন্সিলর নাজমুল হাসান সজল, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি পরিচালক ও নিটিং ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি আবু তাহের শামীম, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি পরিচালক এহসানুল হাসান নিপু, সাইফুল ইসলাম মাসুম, সৌমিক দাস, জাকারিয়া ওয়াহিদ, সোহেল আখতার সোহান, আরিফ দিপু, সাবেক পরিচালক ফারুক বিন ইউসুফ পাপ্পু, অ্যাডভোকেট মোঃ সুলতান উদ্দিন নান্নু, ওয়েব টেক্সের পরিচালক লিটন চন্দ্র পাল প্রমুখ। সভার শুরুতে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি ও অল ত্রিপুরা মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা উপহার স্বারক প্রদান করা হয়। পরে ত্রিপুরার ইন্ডাষ্ট্রিয়াল তথ্যের একটি ফাইল নারায়ণগঞ্জ চেম্বারের সভাপতির হাতে তুলে দেয়া হয়।

ত্রিপুরা ও নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের বৈঠকে ত্রিপুরায় বিনিয়োগের আহবান

সভায় ভারতের ত্রিপুরার ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট (শিল্প উন্নয়ন) করপোরেশনের চেয়ারম্যান টিংকু রায় বলেন, ত্রিপুরায় নতুন সরকার গঠন হয়েছে ৪ মাস পূর্বে। আমি দায়িত্ব পেয়েছি ২ মাস পূর্বে। এটাই প্রথম আমাদের দেশের বাইরে সফর। আমাদের সরকার পরিকল্পনা করছে বিনিয়োগ বাড়ানোর। এই লক্ষ্যেই আমাদের এই সফর। আমাদের সরকার বিদেশী বিনিয়োগকারিদের সুবিধার জন্য সিঙ্গেল উইন্ডো সিস্টেম প্রণয়ন করছে। আগ্রহী উদ্যোক্তারা আবেদন করলে সব ধরনের প্রসেসিং আমরাই করে দিব। ত্রিপুরায় ইন্ডাষ্ট্রি স্থাপনে সরকার সব ধরনের সুযোগ সুবিধা দিতে প্রস্তুত। আমাদের শিল্প এলাকায় গ্যাস বিদ্যুত পানির সব ধরনের সুযোগ সুবিধা রয়েছে। স্বচ্ছতা প্রণয়নে অনলাইন সিস্টেম চালু রয়েছে। সেখানে রাবার, থ্রেড, পেপার ব্লক, ফিস প্রসেসিং, পোল্ট্রি, ডেইরী, প্লাষ্টিক, ফুড প্রসেসিংসহ নানা ধরনের শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের সম্ভাবনা রয়েছে। ইন্ডাষ্ট্রিয়াল এরিয়া প্রাকৃতিকভাবেও অনেক সুন্দর। ত্রিপুরায় ভাষাগত ও খাবার সমস্যাও নেই সবই বাংলাদেশের মতো। বাংলাদেশ থেকেই ত্রিপুরাতে ৪০০ কোটি টাকার পণ্য আমদানী করা হচ্ছে। এজন্য আমাদের সরকার চাচ্ছে বাংলাদেশের শিল্প উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীরা আমাদের শিল্প এরিয়ায় বিনিয়োগ করুক। ত্রিপুরার সরকার আপনাদের গ্রহণ করতে প্রস্তুত। বাংলাদেশের বৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান প্রাণ, আরএফএল গ্রুপও সেখানে শিল্প কারখানা খুলেছে উল্লেখ করে তার ইতিবাচক দিকগুলো তিনি তুলে ধরেন।

ত্রিপুরা ও নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের বৈঠকে ত্রিপুরায় বিনিয়োগের আহবান

সভায় অল ত্রিপুরা মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সুজিত রায় আগামী সেপ্টেম্বর মাসে ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্য মন্ত্রীর বিপ্লব কুমার দেবের উপস্থিতে অনুষ্ঠিতব্য ব্যবসায়ীদের সেমিনারে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জের শিল্প উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের যোগ দেয়ার আহবান জানান। তারা নারায়ণগঞ্জের বিনিয়োগকারীদের সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা দিতে প্রস্তুত বলেও জানান।

নারায়ণগঞ্জের সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি পরিচালক অ্যাডভোকেট হোসনে আরা বেগম বাবলী বলেন, আপনারা আমাদের আমন্ত্রন জানিয়েছেন এজন্য আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারায়ণগঞ্জ সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ইকোনমিক জোন করছেন। যেখানে শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য নানা ধরনের সুযোগ সুবিধা থাকছে। আমরাও ত্রিপুরার ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহবান জানাচ্ছি। আমাদের বর্ডার নিয়ে বিভক্তি থাকলেও আমাদের কৃষ্টি কালচারে কোন বিভক্তি নেই। আমাদের হৃদয়ের বন্ধন রয়েছে। তিনি আবারো ত্রিপুরার ব্যবসায়ীদের নারায়ণগঞ্জে আসার আহবান জানান। এছাড়া ভারতের সদ্য প্রয়াত সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর মৃত্যুতে শোক জ্ঞাপন করেন।

নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল বলেন, বর্তমানে ভারতের প্রধান মন্ত্রি নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা বানিজ্যের ব্যাপারে খুবই আন্তরিক। ত্রিপুরার ইন্ডাষ্ট্রিয়াল করপোরেশনের যে তথ্য আমাদের কাছে সরবরাহ করা হয়েছে তা শীঘ্রই নারায়ণগঞ্জ চেম্বারের পরিচালকদের মধ্যে সরবরাহ করা হবে। আগামী মাসে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির একটি প্রতিনিধি দল ত্রিপুরায় সফরে যাবে। তাদের সফরের পরে আমরা বাকী সদস্যদের মধ্যে সেই তথ্য সরবরাহ করবো। আমরা আশা করবো এই সফর একটি ইতিবাচক দিক বহন করবে এবং ত্রিপুরা ও নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীদের জন্য সুফল বয়ে আনবে। পরে দুই দেশের বানিজ্যনেতৃবৃন্দরা নৈশ ভোজে যোগদেন।